কিভাবে বানাবেন আপনার বিজনেস ওয়েবসাইট?

আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন সবাই? আশা করি ভালো আছেন। আমি ওয়াসিম রানা আজকে আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি “কিভাবে বানাবেন আপনার বিজনেস ওয়েবসাইট” এই বিষয়ে কিছু কথা বলতে।

চলুন শুরু করা যাক। তাহলে আপনাকে সবার আগে একটা বিষয় জানতে হবে যে…বলুন তো ওয়েবসাইট কি?

জানেন? বাহ খুব ভালো। কি জানেন না? আহা, ঠিক আছে কোন সমস্যা নাই, আমি আপনাকে বিষয়টা বুঝিয়ে দিচ্ছি। আচ্ছা আপনি নিশ্চয়ই ফেসবুক ব্যবহার করেন, তাইনা? জানেন ফেসবুক একটা ওয়েবসাইট, কি বিশ্বাস হচ্ছে না তো?

হা হা জী হ্যাঁ, আপনি একটা ওয়েবসাইট ব্যবহার করেন যেটা কিনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম নামে আমাদের সবার কাছেই পরিচিত। তাহলে ছোট করে বলতে গেলে আপনি কম্পিউটার এর পর্দায় সুন্দর সুন্দর ছবি, ভিডিও, লেখালেখিসহ যেটা দেখেন সেটায় একটা ওয়েবসাইট।

ধরুন আপনার একটা কাপরের দোকান আছে, আপনি লোকালি মোটামুটি ভালোই সেল করেন কিন্তু আপনি চাচ্ছেন আপনার বিজনেসের পরিধি আরও বাড়াতে ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহার করে। তাহলে আপনার কি দরকার? নিশ্চয়ই একটা ওয়েবসাইট। আচ্ছা আপনি জানলেন ওয়েবসাইট কি, কিন্তু এটা বানাবেন কিভাবে? দর্জির কাছে গিয়ে নাকি কামারের কাছে গিয়ে?

হাহা, যারা ওয়েবসাইট বানায় তাদেরকে ওয়েব ডিজাইনার এবং ডেভেলপার বলে। তার মানে আপনি নিশ্চয়ই কোন ডিজাইনার বা ডেভেলপার এর কাছে যাবেন তাইনা? জী আমিও তাই মনে করি। কিন্তু তার আগে আপনাকে কয়েকটি বিষয় ক্লিয়ার হতে হবে।
১। আপনি কি কি চাচ্ছেন আপনার ওয়েবসাইটে?
২। কোন কোন ফিচার গুলো আপনার দরকার?
৩। মানুষ কিভাবে আপনার ওয়েবসাইটে যাবে?
৪। আপনার ওয়েবসাইটের নাম কি হবে?

আরও অনেক কিছু। আচ্ছা যখন আপনি বিষয়গুলো যেনে গেলেন বা ঠিক করে ফেললেন তখন আপনার আরও একটি জিনিস লাগবে যেটা ছাড়া একটা ওয়েবসাইট কল্পনা করাও দায়। জানেন কি সেটা? জানেন? বাহ, আপনি অনেক কিছুই জানেন। কি জানেন না? আচ্ছা কোন সমস্যা নাই আমি বলে দিচ্ছি। নিচের বিষয়বস্তু গুলোই লাগবে আপনার ওয়েবসাইটের জন্য।

১। একটা ডোমেইন মানে নাম, যেমন google.com, facebook.com, twitter.com, youtube.com আরও কত কি লিখে সার্চ করলে ওয়েবসাইট এসে হাজির হয় তাইনা? ঠিক তেমনই আপনার ওয়েবসাইটের জন্যও একটা নাম লাগবে যেটাকে বলে ডোমেইন।

২। আচ্ছা নাম তো সিলেক্ট করে ফেললেন এবার আপনার ওয়েবসাইটের ফাইল গুলো রাখবেন কোথায়? মানে ছবি, ভিডিও, লেখালেখিসহ আরও কত কিছু। আপনার বাসার কম্পিউটারে রাখলেই তো হয় তাইনা? হাহা জী না, এটার জন্য আপনাকে একটা ভার্চুয়াল স্পেস কিনতে হবে যেটাকে বলে হোস্টিং। আচ্ছা হোস্টিং আবার কি? ওহ, ভালো প্রশ্ন, আচ্ছা আপাতত আপনার কম্পিউটারের যেই হার্ডডিস্ক আছে সেটা মনে করেই থেকে যান।

আচ্ছা তাহলে কি ডোমেইন এবং হোস্টিং দুইটা দুই জাইগায় কিনতে হবে?
জী না। একই কোম্পানির আন্ডারে আপনি দুইটাই কিনতে পারবেন। আপনি যদি মোটামুটি ভালো মানের হোস্টিং কিনতে চান যেখানে কিনা আপনার ওয়েবসাইট একটু ফাস্ট হবে তাহলে আপনাকে প্রত্যেক বছরের জন্য ৭/৮ হাজার টাকা গুনতে হবে তবে হ্যাঁ এই খরচটা আপনার ডোমেইন এবং হোস্টিং দুইটা মিলেই।

আচ্ছা সবই হলো এবার আপনার ওয়েবসাইট বানিয়ে দিবে কে?
আচ্ছা সবই যখন বললাম এটা বলতে সমস্যা কি? যদি আপনার পরিচিত কেউ থেকে থাকে তাহলে তার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন এবং আপনার পুরো ওয়েবসাইটের বিস্তারিত আলোচনা করতে পারেন। এক্ষেত্রে বাজেট কেমন লাগবে সেটা ডেভেলপার আপনাকে বলে দিবে। কি এখনও সমস্যা মনে করছেন? তাহলে আমার সাথে যোগাযোগ করলেই তো পারেন। এখানে ক্লিক করুন আমাকে পেয়ে যাবেন ইনশা আল্লাহ।

অনলাইন বিজনেস সংক্রান্ত যে কোন ধরনের পরামর্শের জন্য আমার সাথে যোগাযোগ করতে ভুলবেন না। আপনার অনলাইন বিজনেসের সর্বাধিক সাফল্য কামনা করে আজকে এই পর্যন্তই। ভালো থাকবেন।

ধন্যবাদান্তে,

মোঃ ওয়াসিম রানা
ওয়েব ডেভেলপার
অনলাইন এন্টারপ্রেনার/ওয়েব কনসালটেন্ট
সেলঃ +৮৮০ ১৬৪৬৭৮২৭৯৬

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *